ঢাকা, ০২ আগস্ট, ২০২১
Generation's Voice
সর্বশেষ:
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সেরা কনটেন্ট নির্মাতাদের অ্যাওয়ার্ড রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফেরত যেতে চায় ভাষা সংগ্রামীদের কাছে প্রথম বর্ণ পরিচয়ের দুর্লভ সুযোগ সাংসদ লিটন হত্যা মামলায় সাবেক এমপি রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিচ্ছেন সিলেটে নিজ বাড়িতে ফিরলেন খাদিজা বিডিআর বিদ্রোহে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
৮৫৪

ফেইসবুকের জরিমানা ৫ লাখ পাউন্ড

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২৬ অক্টোবর ২০১৮  

পাঁচ লাখ পাউন্ড বা বাংলাদেশি মুদ্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকার বেশি জরিমানা গুনতে হলো ফেইসবুককে।ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার তথ্য কেলেঙ্কারির ঘটনায় যুক্তরাজ্যের ডেটা প্রটেকশন ওয়াচডগ এই জরিমানা করেছে।দেশটির ইনফরমেশন কমিশনারস অফিস (আইসিও) বলেছে, ফেইসবুক আইনটির ‘গুরুতর লঙ্ঘন’ করেছে।

গত মে মাসে জিডিপিআর কার্যকর হওয়ার আগের বা পুরানো ডেটা সুরক্ষা আইন অনুসারে এটি সর্বাধিক জরিমানা বিধান।আইসিও বলছে, ফেইসবুক কোন পরিষ্কার সম্মতি ছাড়াই অ্যাপ ডেভেলপারদের তাদের কাছ থেকে তথ্য নেবার ক্ষমতা দিয়েছিল।

জরিমানা নিশ্চিত করে এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলেছে, ২০০৭ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যগুলি যথাযথভাবে, সুস্পষ্ট ও সম্মতি ছাড়াই ডেভেলপারদের তা ব্যবহারের অ্যাক্সেস দেয়। এমন কী, যারা অ্যাপটি ডাউনলোড না করলেও শুধু ব্যবহার করলেও ব্যক্তিগত তথ্য চলে যেতে ডেভেলপারদের হাতে।ফেইসবুক এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবে বলে জানিয়েছে।

মাধ্যমটি এক বিবৃতিতে বলেছে, যদিও আমরা তাদের কিছু বিষয়কে শ্রদ্ধার সঙ্গে অসম্মতি জানিয়েছি। আমরা আগেও বলেছি, আমাদের উচিত ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকা নিয়ে আরও বিষয় তদন্ত করা এবং আমরা ২০১৫ সালেই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিলাম।

ব্যবহারকারীর তথ্য অপব্যবহার হয়েছিল যেভাবে.

২০১৪ সালে আপনার পারসোনালিটি কেমন তা জানার জন্য একটি অ্যাপ ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছিল ফেইসবুক।

. কুইজে অংশ নেওয়া ফেইসবুক ব্যবহারকারীর ডেটা নেয় অ্যাপটি। এমনকি তাদের বন্ধুদেরও ডেটা নিয়ে নেয়।. অ্যাপটি অন্তত ৩ লাখ ৫ হাজার ব্যবহারকারী ডাউনলোড করে। কিন্তু মোট ৮ কোটি ৭০ লাখ ব্যবহারকারীর ডেটা বেহাত হয়।

. পরে সেসব ডেটা ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকা নামের একটি প্রতিষ্ঠান বিক্রি করে দেয়। যা ব্যবহার হয় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অন্যদের প্রভাবিত করার কাজে।

. ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকা এমন ডেটা বেহাতের বিষয়টি অস্বীকার করে এবং বলে, তারা আইনের বাইরে গিয়ে ফেইসবুকের সঙ্গে কিছু করেনি। এমনকি তারা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ওই তথ্য ব্যবহার হয়নি বলেও দাবি করে।

. পরে ফেইসবুক যাদের ডেটা বেহাত হয়েছে তাদের বিষয়টি জানায়।